পাতার উপর দিকে দেখুন

বিচিত্রা: বৈদ্যুতিন রবীন্দ্র-রচনাসম্ভার

Bichitra: Online Tagore Variorum :: School of Cultural Texts and Records

विचित्रा: इलेक्ट्रॉनिक रवीन्द्ररचनावली :: स्कूल ऑफ कल्चरल टेक्स्टस एण्ड रेकॉर्डज़

 
 

বিচিত্রা প্রকল্প

‘বিচিত্রা’ প্রকল্পটি রবীন্দ্রনাথের সার্ধশতবৎসর উদ্‌যাপন উপলক্ষে ভারত সরকারের দ্বারা মঞ্জুর হয়। এটির ব্যয়ভার সম্পূর্ণ বহন করেছেন ভারত সরকারের সংস্কৃতি মন্ত্রক।

সব উপাদান সংগ্রহ, সম্পাদনা ও বিন্যাস, এবং ওয়েবসাইট প্রস্তুতির কাজ করেছেন যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয়ের ‘স্কুল অব কালচারাল টেক্সটস অ্যাণ্ড রেকর্ডস’। অধিকাংশ মূল পাণ্ডুলিপি, বই ও পত্রিকা সরবরাহ করেছেন শান্তিনিকেতনের রবীন্দ্রভবন; ছবি প্রস্তুত করেছেন সি-ড্যাক। অন্যান্য যে সহযোগী সংস্থা উপাদান সরবরাহ করেছেন, তাঁরা হলেন ভারতের জাতীয় গ্রন্থাগার; হার্ভার্ড বিশ্ববিদ্যালয়ের হুটন গ্রন্থাগার; কলকাতা ও যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয়ের কেন্দ্রীয় গ্রন্থাগার; বঙ্গীয় সাহিত্য পরিষৎ; কলকাতার সেন্টার ফর স্টাডিজ ইন সোশ্যাল সায়েন্সেস; লণ্ডন বিশ্ববিদ্যালয়ের সেনেট হাউস গ্রন্থাগার; ও কিছু ব্যক্তিগত সংগ্রাহক।

বিচিত্রার মত বৃহৎ অথচ সুসংহত, এককভাবে পরিকল্পিত ‘জ্ঞানকেন্দ্র’ (integrated knowledge site) যে-কোনো ভাষায় এই প্রথম। রবীন্দ্রনাথের প্রায় সব বাংলা ও ইংরেজি রচনার অধিকাংশ পাঠরূপ এতে অন্তর্ভুক্ত করা হয়েছে। ব্যতিক্রম কিছু চিঠি, বক্তৃতা, পাঠ্যপুস্তক এবং নিজের বাংলা রচনার ইংরেজি অনুবাদ ছাড়া রবীন্দ্র-কৃত অন্য সব অনুবাদ। এখানে পাওয়া যাবে

প্রকল্প রূপায়ণের সার্বিক দায়িত্বে ছিলেন যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয়ের সম্মানীয় প্রাক্তন অধ্যাপক (প্রফেসর এমেরিটাস) সুকান্ত চৌধুরী। উপদেষ্টা কবি ও যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয়ের ভূতপূর্ব অধ্যাপক শঙ্খ ঘোষ। তিরিশজন সদস্যের একটি কর্মীবাহিনী দুই বছর পরিশ্রম করে সব পাঠের প্রতিলিপি, বিভিন্ন সফটওয়ারে তার প্রক্রিয়াকরণ ও ওয়েবসাইটে সংস্থাপনের কাজ সম্পন্ন করেছেন। পাশাপাশি কাজ করেছেন অন্য অনেক কর্মী ও উপদেষ্টা।

প্রকল্পটির উপর একটি সংক্ষিপ্ত ভিডিও প্রদর্শনী এখানে দেখা যাবে: http://www.youtube.com/watch?v=GRNT9pf-sWA